স্বাভাবিক চোখের থেকে ও বেশি দেখা যাবে যে ফোনে

স্যামসাং গত বছর স্মার্টফোন ক্যামেরার জন্য ৬৪এমপি ইমেজ সেন্সর মডিউল নিয়ে আসার ঘোষণা করেছিল। এরপর বাজারে আসে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রার ১০৮এমপি ক্যামেরা সেন্সর। এবার তাঁরা যে প্রযুক্তি নিয়ে আসার কথা ভাবছে, তা শুনলে আপনি চমকে উঠতে পারেন।

এক প্রতিবেদনে স্যামসাং-এর শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মানুষের চোখের রেজুলেশন মোটামুটি ৫০০এমপি। অথচ অত্যাধুনিক সব ডিএসএলআর ক্যামেরা ও স্মার্টফোন ক্যামেরা ৪০এমপি আর ১২এমপি সেন্সরের বেশি দেয় না।

তাই মানুষের দৃষ্টিশক্তির সমান হয়ে উঠতে গেলে এখনও অনেকটা পথ হাঁটতে হবে ক্যামেরা সেন্সরকে। তাই তাঁরা এমন ক্যামেরা সেন্সরের কথা ভাবছেন, যার রেজুলেউশন ৬০০এমপির-ও বেশি হবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেজুলেউশন ও পিক্সলের মধ্যে ভারসাম্য রাখা মুশকিল। ছোট পিক্সেল ইমেজের গুণমান খারাপ করতে পারে। স্যামসাং তাই কাজ করছে অ্যাডভান্স পিক্সল উইনিং টেকনোলজির ওপর।

এখন যে সব ক্যামেরা বাজারে আছে, সেগুলো বেশির ভাগই সেই সব ছবিই তুলতে পারে, যা মানুষের চোখে ধরা পড়ে। অর্থাৎ ৪৫০এনএম-৭৫০এনএম ওয়েভলেংথের মধ্যে।

তবে স্যামসাং যে ৬০০এমপি ক্যামেরা সেন্সরের ওপর কাজ করছে। তা স্মার্টফোনে ব্যবহার করা যাবে না। তবে স্মার্ট কারের মত ডিভাইসে ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে স্মার্টফোনের জন্য স্যামসাং ১৫০এমপি ন্যানোসেল ক্যামেরা সেন্সর উন্মুক্ত করার কথা ভাবছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

LANGUAGES »